ই-পেপার মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০২৪
শিরোনাম: ভৈরবে কোটা আন্দোলনকারী ও র‌্যাব-পুলিশের সংঘর্ষ, টিয়ারসেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ        বিহারে বিদ‍্যুতের তারে তাজিয়া, বিদ‍্যুৎস্পৃষ্ট ২৪       ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বিক্ষোভ চলছে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশের টিয়ারশেল নিক্ষেপ        পাটের সোনালী আঁশে লাভের স্বপ্ন দেখছেন কৃষকরা        ঢাকাসহ সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন       কোটা আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় জাতিসংঘের উদ্বেগ       গ্রাম আদালতের বিচারের প্রতি মানুষের আস্থা বাড়ছে, কমছে হয়রানী-জটিলতা      




জুয়েলারি মেশিনারিজ প্রদর্শনীতে উৎসাহিত ব্যবসায়ীরা
অর্থনৈতিক রিপোর্টার
Published : Saturday, 6 July, 2024 at 6:40 PM
অনেক সময় ক্রেতা তার পছন্দের অলঙ্কারের নকশা বলে দিলেও উন্নত মেশিন না থাকার কারণে সেভাবে তৈরি বা সরবরাহ করতে পারতেন না স্বর্ণ ব্যবসায়ী বা কারিগররা। আবার তারা নতুন কিছু করার কথা ভাবলেও একই কারণে এগোতে পারতেন না।

তাদের সেই ‘না পারার দিন’ শেষ হয়ে এসেছে। আন্তর্জাতিক জুয়েলারি মেশিনারিজ প্রদর্শনীতে আসা বিভিন্ন রকমের অত্যাধুনিক মেশিন স্বর্ণ ব্যবসায়ী ও কারিগরদের নিত্যনতুন স্বর্ণালঙ্কার এবং ক্রেতার চাহিদার অলঙ্কার তৈরির সাহস যোগাচ্ছে।

রাজধানীর ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরার (আইসিসিবি) পুষ্পগুচ্ছ হলে চলমান প্রথম আন্তর্জাতিক জুয়েলারি মেশিনারিজ প্রদর্শনী বাংলাদেশে (আইজেএমইবি-২০২৪) আসা ব্যবসায়ী-উদ্যোক্তাদের মুখে এ আশার কথা উঠে আসে। গতকাল শনিবার প্রদর্শনীর শেষ দিন।

পুরান ঢাকা থেকে প্রদর্শনীতে এসেছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মুক্তা জুয়েলারি পুরান ঢাকার তাঁতীবাজারে। তিনি ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন স্টলে প্রদর্শিত জুয়েলারি মেশিনারিজ দেখছিলেন।

আব্দুল্লাহ আল মামুন বলছিলেন, আধুনিক মানের গহনার তৈরির জন্য দরকার আধুনিক মেশিন। কিন্তু দেশে সেভাবে মেলে না। বিদেশে থেকে সংগ্রহ করতে হয়। বিদেশে যেতে দ্রুত ভিসা না পাওয়া, সময় বের করা, ডলার পাওয়াও কঠিন। আবার বিদেশ থেকে মেশিন আনলেও সার্ভিস ও মেশিন ইনস্টলেশনের জন্য বিদেশিদের অপেক্ষায় থাকতে হয়। এমন অবস্থায় এই প্রদর্শনী এ খাতের উদ্যোক্তাদের জন্য আশীর্বাদ হয়ে এসেছে। 

স্বর্ণশিল্পের এই উদ্যোক্তা বলেন, দেশে প্রথমবারের মত এ ধরনের মেলা হচ্ছে। এর আগে ভারতে গেছি, চীনে গেছি। এখন দেশেই মেলায় সব কিছু পাচ্ছি। আমার মতো অনেকে মেলায় এসেছেন, তাদের আর বিদেশে যাওয়া লাগবে না। আশা করি, আগামীতে আরও বেশি দেশ থেকে বেশি বেশি প্রতিষ্ঠান আসবে। আরও সুবিধা হবে।

স্বর্ণালঙ্কারের ব্যবসা আছে আশিস সাহার। তিনি এসেছেন নরসিংদী থেকে। আশিস বলেন, মেলায় আসায় অলঙ্কার তৈরির ক্ষেত্রে নতুন নতুন ভাবনা মাথায় আসছে। অনেক সময় চাহিদা থাকার পরও আমরা উন্নত মেশিন না থাকার কারণে সেদিকে এগোনোর সাহস পেতাম না। এই মেলা আমাদের সাহস তৈরি করে দিয়েছে। তিনি বলেন, বাজুসের মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি মেলা হচ্ছে। মেলায় কোন দেশের কোন প্রতিষ্ঠান কী মেশিন ও সেবা নিয়ে এলো সেটাও জানতে পেরেছি।

গত বৃহস্পতিবার ফিতা কেটে আন্তর্জাতিক এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মাহবুবুল আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিন হেলালী, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি ও নিটল নিলয় গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল মাতলুব আহমাদ।

প্রদর্শনীতে ভারত, ইতালি, তুরস্ক, সংযুক্ত আরব আমিরাত, জার্মানি, চীন ও থাইল্যান্ডসহ বিশ্বের ১০টি দেশের প্রায় ৩০টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান সব ধরনের স্বর্ণালঙ্কার তৈরির মেশিন নিয়ে এসেছে। মেলাতে বড় জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানের জন্য ল্যাব, মান পরীক্ষা, হলমার্ক বসানোর উন্নত মানের মেশিন; ছোট ও মাঝারি প্রতিষ্ঠানের অলঙ্কার তৈরির সরঞ্জাম এবং ডায়মন্ড কাটিংয়ের মতো সুক্ষ্ম মেশিন এনেছে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

প্রদর্শনীতে আগতরা জানান, স্বর্ণালঙ্কার তৈরির প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে যারা মেশিন কিনতে আগ্রহী, তাদের মালিক বা স্বত্বাধিকারীরা এ মেলায় ঘুরে ঘুরে স্টলগুলো দেখছেন। মেলায় অংশগ্রহণকারী বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোও এ দেশের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে পরিচিত হতে পারছে। 

উভয়পক্ষই বলছে, এ প্রদর্শনীর মাধ্যমে স্বর্ণশিল্পের আধুনিকতার যাত্রা আরও উচ্চমাত্রায় যাবে। উদ্যোক্তাদের মধ্যে তৈরি হবে সেতুবন্ধন।





আরও খবর


সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর ⇒
সর্বাধিক পঠিত
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে.এম. বেলায়েত হোসেন
৪-ডি, মেহেরবা প্লাজা, ৩৩ তোপখানা রোড, ঢাকা-১০০০ থেকে প্রকাশিত এবং মনিরামপুর প্রিন্টিং প্রেস ৭৬/এ নয়াপল্টন, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
পিএবিএক্স: ৪১০৫২২৪৫, ৪১০৫২২৪৬, ০১৭৭৫-৩৭১১৬৭, বিজ্ঞাপন ও সার্কুলেশন: ৪১০৫২২৫৮
ই-মেইল : [email protected], [email protected], [email protected]